Warning: file(): http:// wrapper is disabled in the server configuration by allow_url_fopen=0 in /home/kolkatanews/public_html/wp-content/plugins/sassy-social-share/sassy-social-share.php on line 36

Warning: file(http://bestkolkata.co.in/wp-content/plugins/sassy-social-share/admin/css/sassy-social-share-hover-svg-horizontal.css): failed to open stream: no suitable wrapper could be found in /home/kolkatanews/public_html/wp-content/plugins/sassy-social-share/sassy-social-share.php on line 36

Warning: file(): http:// wrapper is disabled in the server configuration by allow_url_fopen=0 in /home/kolkatanews/public_html/wp-content/plugins/sassy-social-share/sassy-social-share.php on line 36

Warning: file(http://bestkolkata.co.in/wp-content/plugins/sassy-social-share/admin/css/sassy-social-share-default-svg-vertical.css): failed to open stream: no suitable wrapper could be found in /home/kolkatanews/public_html/wp-content/plugins/sassy-social-share/sassy-social-share.php on line 36

Warning: file(): http:// wrapper is disabled in the server configuration by allow_url_fopen=0 in /home/kolkatanews/public_html/wp-content/plugins/sassy-social-share/sassy-social-share.php on line 36

Warning: file(http://bestkolkata.co.in/wp-content/plugins/sassy-social-share/admin/css/sassy-social-share-hover-svg-vertical.css): failed to open stream: no suitable wrapper could be found in /home/kolkatanews/public_html/wp-content/plugins/sassy-social-share/sassy-social-share.php on line 36
3:18 am - Saturday August 8, 2020

স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে অভিযোগ উঠলো পানিহাটি স্টেট জেনেরাল হসপিটালের বিরুদ্ধে

Mar 20, 2020
বেস্ট কলকতা নিউজ - Best Kolkata News Media

সোদপুর এর বাসিন্দা গত ১৯ এ মার্চ বৃহস্পতিবার শিব রতন দাস বয়স ৭৮, শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে পনিহাটি স্টেট জেনেরাল হসপিটালে ভর্তি হন বিকালে। ওনার পুত্র শ্রী সুব্রত দাস অভিযোগ করেছেন যে হাসপাতালের এটেনডেন্ট কে দিয়ে সেলায়াইন ইনজেক্ট করা হয় হাসপাতালের নার্সদের সামনে এবং বহুবার ঠিকমত সূচ না ফোটানোর জন্য যন্ত্রণায় কুকরে ওঠেন রোগী। সামনে দাড়িয়ে থাকা অবস্থায় তাদেরকে বলা হলেও তারা(নার্স) কোনো কর্ণপাতই করেননি। ওনার অভিযোগ কি করে হাসপাতালের রোগীকে একজন অনভিজ্ঞ এটেনডেন্ট নিডল পুস করে সেলাইন লাগাতে পারে এবং এই পুরো ঘটনাটাই হাসপাতালে নার্সদের সামনে ঘটে। নার্সদের জানানো সত্ত্বেও এ বিষয়ে কোনো কর্ণপাত করেননি। এছাড়াও রোগীর পুত্র সুব্রত দাস এর অভিযোগ পাইপে হাওয়া থাকার কথা নার্সদের জানানো হলেও নার্সরা কোনো গুরুত্ব দেননি।

Filed in