3:24 pm - Friday April 22, 8281

পড়া চালিয়ে যেতে চাওয়ায় পুড়িয়ে খুন গৃহবধূকে! গ্রেফতার অধ্যাপক স্বামী।

superadmin 0 respond

আত্মহত্যা নাকি খুন? এই প্রশ্নই এখন ভাবাচ্ছে তদন্তকারী আধিকারিকদের। শৌচাগারের মধ্যে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হল এক গৃহবধূকে।

রাজারহাটের বাসিন্দা গৃহবধূ উচ্চ শিক্ষায় আগ্রহী ছিলেন। কিন্তু তাঁর স্বামী ও পরিবার সেই মতের বিরুদ্ধে ছিলেন বলে জানা গিয়েছে স্থানীয় সূত্রে। প্রায় প্রতিদিনই তাঁদের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত বলে জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা। উল্লেখ্য, গৃহবধূর স্বামী নিজে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক। কিন্তু স্ত্রীর উচ্চশিক্ষায় তাঁর মত ছিল না বলে জানিয়েছে গৃহবধূর পরিবার। এই নিয়েই চলছিল পারিবারিক জটিলতা।

কিন্তু কেন এই পরিণতি হল তাঁর? তানিয়ার বাপের বাড়ির দাবি, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএ করার পরেও পড়াশোনা চালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাতে বাধ সাধছিল শ্বশুরবাড়ির লোকজন। স্ত্রীর উচ্চশিক্ষায় আপত্তি ছিল স্বামীরও, যিনি আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রনিক্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক! তানিয়ার বাবার অভিযোগ, স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকেরা অত্যাচার করত। বলত চাকরি ও পড়া যাবে না।

পরিজনদের দাবি, শ্বশুরবাড়ির বাধা সত্ত্বেও থামতে চাননি তানিয়া। দুই শিশু সন্তানকে সামলে আরও পড়তে চেয়েছিলেন। এর জেরেই বৃহস্পতিবার রাতে তাঁর গায়ে আগুন দিয়ে দেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

অভিযুক্ত অধ্যাপক জানান, তাঁর স্ত্রী সন্দেহবাতিক ছিলেন। স্বামীর সঙ্গে ঝামেলার সেটাই বড় কারণ ছিল বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন তিনি। তবে অগ্নিদগ্ধ হওয়ার সঠিক কারণ কী, তা জানতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

Don't miss the stories followBest Kolkata Live News and let's be smart!
Loading...
5/5 - 1
You need login to vote.

তল্লাশিতে রাম রহিমের ডেরা থেকে কী মিলল দেখুন

মেঘের কোলে পাহাড়ের দেশ : দারিংবাড়ি

Related posts
Your comment?
Leave a Reply